সভাপতি, ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ

‘আলোচনার টেবিলে আলোচিত কর্মী রকিব’

আলোচনার টেবিলে আলোচিত  কর্মী রকিব, লিখেছেন ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রকিবের কলেজ জীবনের শিক্ষক আরিফুল হক।

সবে বয়সটা তোমার ছাত্র রাজনীতির কিন্তু ধ্যান ধারনা আর কাজে কর্মে বয়সটা তোমার এরও কিছু ঊর্ধে।হতেই পারে বয়সকে তো আর কোন ফ্রেমে বেঁধে রাখা যায়না হয়তো মনের বয়সটা এরও ঢের বেশি। হোক তা যা খুশি।
একটা কথা মনে রেখো কেউ বয়সের ভারে নয় বরং পরিস্থিতির আবর্তে পরিপূর্ণ মানুষ হয়ে উঠে।আমার চোখে তুমি প্রচন্ড বোধশক্তি সম্পন্ন বুদ্ধিদীপ্ত একজন বিচক্ষণ মানুষ ।
তাই তোমাকেই বলছি……..শোনো
কখনও হেরে যাওয়ার আগে হারবেনা প্রয়োজনে কিছুটা মচকাবে আদতে ছাড়দিবে কিন্তু কখনো ভাঙবেনা। 
আর কারো রূপ থাকলে ধরে দিও,না থাকলে ব্যাপার না গড়ে দিও। আত্ম অহমিকা, অহংবোধে কখনো হারবেনা; কপট ধূর্ত ধূসরদের থেকে যথা সম্ভব দূরে থাকবে কারণ চোরের বন্ধু আর যাই হোক নেহাত সাধু সুপুরুষটি নয়। আর যদি মহিমা দেখাতে চাও ভুলেও গরিমা করবে না; বড় হতে চাইলে অহেতুক কাউকে একদম ছোট করবে না শুধু তোমার আপন মনের গোপন ভাবনার কাজগুলো মনোযোগ দিয়ে করে যাও দেখবে তোমার সামনের বড় বড় লাইনগুলো আপনা আপনিই ছোট হয়ে যাবে। তখনই সাফল্য আসবে আর তুমিই সফল হবে।
মনে রাখবে……..
যখন দেখবে তোমার কোন কাজেরই তেমন কোন সমালোচনা হচ্ছে না,একজন নিন্দুকও জাগেনি তোমার বিরুদ্ধে কিছু বলার তখন বুঝবে হয় তোমার সমালোচনা হওয়ার মতো উল্লেখযোগ্য তেমন কিছুই করোনি এখনও নয়তো লোকে আজো তোমাকে বড্ড ভয় পায়।আবার তখনই বুঝবে তুমি বড় হতে চলেছো, এগিয়ে যাচ্ছো তোমার প্রত্যাশিত কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যের দিকে যখন দেখবে অহেতুক কিছু লোক তোমায় নিয়ে যাচ্ছেতাই বলে যাচ্ছে, মুখরোচক গল্প বানাচ্ছে তখন তোমার শ্বাস প্রশ্বাস, রক্তের পালস, হাই প্রেশার, লো প্রেশার এমনকি তোমার হৃদয়ের গোপন আবদার ইত্যাদির খবর তোমার বাবা মা, ভাই, নিজের বোনটা অথবা নিতান্ত কাছের জনটার থেকেও ওদের কাছে বেশি থাকবে।সত্যি সেদিনই তুমি হবে কার্যত সফল।

সত্যি বলতে কি যে নদীতে স্রোত নেই তাকে কি তুমি নদী বলা যায়!আবার যার জীবনে কোন নিন্দুক নেই তাঁর সামান্য অর্জনেও কোন আনন্দ নেই!তাই আজকের হওয়া সমালোচনা, গালি বা ভয় বাঁধা বেমালুম ভুলে আগামীর জন্য পথো হাটো।শেষ পর্যন্ত মনে রাখবে-
প্রয়োজনে একদিন বাঁচবে হিংস্র ভয়াল সিংহের ন্যায়!হাত পেতে নিবেনা কিচ্ছু যদি কেহ করুণায় দেয়!
রাজনীতির মাঠে “সবাই আপন সবাই পর”-একথা সবসময় মাথায় রেখে রাজপথে হাঁটবে।আর সময়ের আগে কিছুই নয়, ভাগ্য বিধাতার বিধি সমস্ত এ কথাই কয় নয়তো কৃষকের ছেলে কেমন করে আজকের “রাষ্ট্রপ্রধান” হয়! 

রকিব
মেঘ দেখে তুমি করো না ভয় আড়ালে তোমার সূর্য হাসে!
আসবে পথে আঁধার নেমে তাই বলে কি রইবে থেমে!

তুমি পথ চলো ভাই কেবল তোমারই নিয়মে……
একদিন সত্যিই ইতিহাস হবে তোমার গৃহকোণে
সে ইতিহাস ময়মনসিংহের অনুভূতির ইতিহাস
সে ইতিহাস ময়মনসিংহের পটমুক্তির ইতিহাস!

এ নয় কোন বাহাস উপহাস
এক ছোট ভাইয়ের কর্মের গুণের প্রতি 
আরেক বড় ভাইয়ের অন্তরের ভীষণ বিশ্বাস!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *