বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বলতে আমরা কি বুঝি—?

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বলতে আমরা কি বুঝি—?
আমি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বলতে বুঝি-
“ছাত্রলীগ বাংলার ছাত্র সমাজের অন্তরের অনবদ্ধ অনুভূতির নাম।
সাবেক ও বর্তমান একই অনুভূতির দুই প্রজন্মের মিলন মেলাকে।
ছাত্রলীগে একজন কর্মী সাবেক হওয়ার পর তার আবেগটা একটু বেশীই থাকে, আর এই আবেগ প্রকাশের দিনটিই হলো “৪ ঠা জানুয়ারী” ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে!
এই দিনে সাবেক ছাত্র নেতারা বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধাভরে স্বরণের মাধ্যমে তাদের সময়কার অতীত, ঐতিহ্য, লড়াই, সংগ্রাম ও অর্জনের অনুভূতি প্রকাশ করবে।
অন্যদিকে বর্তমান নেতা কর্মীরা সেই অনুভূতিকে তাদের আগামীর শক্তি হিসেবে প্রেরনার মানবে; এভাবেই প্রতি বছরের বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়ে থাকে।
এই তিন “অজেয় বীর” জন্মগতই সম্পূর্ন; এতে অহেতুক সংযোজন বা বিয়োজন নিস্প্রয়োজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.