President of Bangladesh Students League at Mymensingh District Unit.

এক তালিবালী (মৌলভীসাব/মাস্টরের) আত্ম’কথন!

 

একদা এক গ্রামে এক ‘মক্তব’ ছিলো! সে ‘মক্তবে’ এক ‘ধূর্ত’ মৌলভীও ছিলো!

সেই ‘মক্তবে’ গ্রামের ছেলে-পেলেরা নিয়মিত পাঠদান করতে যেত! 

পাঠদানের নামে ঐ মক্তবে মৌলভী মশাই তার ছাত্রদের নিত্যদিন শিক্ষা দিতো এইরুপে-

“আইজকা (মৌলভীসাব/মাস্টরসাব) গোসত দিয়া ভাত খাইবো”!

“আইজকা (মৌলভীসাব/মাস্টরসাব) গোসত দিয়া ভাত খাইবো”!

“আইজকা (মৌলভীসাব/মাস্টরসাব) গোসত দিয়া ভাত খাইবো”!

আর এই ভাবেই সে মক্তবে শিক্ষা নিয়মিত চলতো আদায় কাঁচ কলায় আর হরেক রকম কুট ছলনায়।

এরপর ছেলে-পেলেরা মত্তব শেষে বাড়ি ফেরার পর অভিবাবকরা তার সন্তানদের জিজ্ঞেস করতো-

বাবা আজকা ‘মক্তবে’ তুমাগরে (মৌলভীসাব/মাস্টরসাব) কি পড়াইলো?

#ছাত্র_জবাবে_বললো-! 

আইজগা (মৌলভী/মাস্টর) গোসত দিয়া ভাত খাইবো”!

তখন অভিবাবকরা প্রায় প্রতিদিন’ই গোসত,ভাত রান্না করে মৌলভী সাহেবের জন্য পাঠাতো।

আর এ ভাবেই আজকে এই ছাত্রের বাড়ি,কালকে ঐ ছাত্রের বাড়ি মৌলভীসাবের তৃপ্তির ঢেকুর তুলে পেট ভরে নিশ্চিন্তে খাওয়া চলতো! 

ঐ মৌলভী এভাবেই প্রতিদিন তার ছাত্রদের ভুলভাল শিক্ষা দিতেন! কিন্তু ছাত্ররা সে শিক্ষার কোনো মাহাত্ম্য বুঝতে পারতো না! 

তবুও মৌলভীসাব যাই বলতেন ছাত্ররা তাই শিখতো,আর তাই করতো। 

কিন্তু নিয়তি বড়ই নির্মম আর নিষ্ঠুর হয়! ঐ গ্রামে একদিন এক নতুন (মৌলভী/মাস্টরের) আগমন ঘটলো! কিন্তু নতুন মাস্টার আগের মাস্টরের চেয়ে একটু বেশীই ‘ধূর্ত’!

এরপর একদিন ছাত্ররা রাস্তা দিয়া নাইচ্চা নাইচ্চা জোরে জোরে মৌলভীসাবের দেওয়া পড়া বইলা বইলা মক্তবে জাইতেছিলো! 

তখন হঠাৎই নয়া (মৌলভী/মাস্টর) ঐ (আলা-ভোলা) ছাত্রদের খেয়াল করলো ও ডেকে জিজ্ঞাসা করলো-

বাবারা তুমরা কই যাও আর জোরে কি যানি বইলতাছিলা?

জবাবে বাচ্চারা বললো- মক্তবে মৌলভীসাব পড়া দিসে-

“আইজকা (মৌলভীসাব/মাস্টরসাব) গোসত দিয়া ভাত খাইবো”!

তখন নয়া মৌলভীসাব শিক্ষার্থীদের সবই শুনলেন ও বুঝলেন এবং ভীষণ অবাক হলেন! 

এরপর, মৌলভীসাব বললেন আমি আইজকা থাইকা  তোমাগর নয়া মৌলভী-!#আইজ তোমাগরে নতুন একটা পড়া দিলাম-!

“যখন মক্তবে মৌলভীসাব তোমাগরে পড়া শিখাইবো; 

যে “আইজকা মৌলভীসাব গোসত দিয়া ভাত খাইবো”!

তখন তোমরা বলবা-!

“তালিবালী কইরা কয়দিন”!,”তালিবালী কইরা কয়দিন!”

এর পরে ছাত্ররা মক্তবে গেল; ও পূর্বের মৌলভীসাব যথারীতি তাদের পড়া ধরলোঃ

তখন ছাত্ররা নয়া মৌলভীসাবের দেওয়া নতুন পড়া বলে উঠলো!

“তালিবালী কইরা কতদিন”!”তালিবালী কইরা কতদিন!”

“তালিবালী কইরা কতদিন”!,”তালিবালী কইরা কতদিন!”

ঠিক তখনই পূর্বের ঐ ‘ধূর্ত মৌলভী’ বুঝতে পারলেন!এই গ্রামে তার চেয়ে অধিক ধূর্ত কেউ আইছে! 

আর সেই’ই পোলাপানরে এই নতুন পড়া শিখায় দিছে!

সে এও বুঝতে পারলো যে এই গ্রামে আর তার ভাত নাই! তার সব তাল্টিবাল্টি ধরা খাইয়া ফেলছে! 

এরপর হঠাৎই একদিন পূর্বের মৌলভীসাব- খুব সকালে সবার অগোচরে ‘লুঙ্গিটা মাথায় দিয়া’! ‘পাছাডা উদলা’ কইরা গ্রাম ছেড়ে দৌড়ে পালিয়ে গেলেন!

Moral of the story যতই তাল্টিবাল্টি করুন! যতই করুন ফন্দিফিকির ধান্দা ফান্দা! সময় এখন ভীষণ খারাপ খুবই মন্দা!!

#কুট_মৌলভী সময় থাকতে ইজ্জত সামলা!! পালা!!পালা!! পালা!!

#বিদ্রঃ

স্বার্থের টানে যে যতই যাই করো,যারে যতই কাছে টানো! ভেবোনা সব উদ্ধার কইরা ফেলবে! তোমার সকল ইচ্ছে! 

জনতা জানে তুমি কি! আর তুমি কে! তৈরি থেকো সময় হলেই প্রমাণ পাবে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *